নভেম্বর ২৯, ২০২১

মাদক সেবনের দায়ে গোদাগাড়ীতে কাউন্সিলরসহ ৭ জনের কারাদণ্ড

1 min read

নিজস্ব প্রতিবেদক-



রাজশাহীর গোদগাড়ী উপজেলায় মাদক সেবনের দায়ে কাউন্সিলরসহ ৭ জনকে সাজা দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। গতকাল সোমবার বিকেল সাড়ে ৫ টার দিকে পৌর এলাকার বুজরুজ রাজারামপুর হলের মোড় এলাকার একটি বাগান থেকে মাদক সেবনরত অবস্থায় তাদের আটক করা হয়।

এছাড়া মাদক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত ৫ আসামীকে ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ফলে গোদাগাড়ীতে চাঞ্চল্যসৃষ্টি হয়েছে।

পুলিশ জানায়, সোমবার বিকেল সাড়ে ৫ টার দিকে রাজশাহী মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সদস্যরা পৌর এলাকায় অভিযান চালিয়ে মাদক সেবনের অভিযোগে মোট ৫ জনকে হাতে নাতে আটক করে। পরে তাদের কে আটক করে উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোছা. নাজমুন নাহারের নিকট নিয়ে যাওয়া হয়। এই সময়  নাজমুন নাহারের ভ্রাম্যমান আদালতে মাদাকসক্ত ৫ যুবককে ৩ মাস করে সাজা প্রদান করেন।

এর আগে আটককৃতদের ছাড়াতে জোর তদবির করে গোদাগাড়ী পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শহিদুল ইসলাম,  উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনি সম্পাদক গোলাম কাউসার মাসুম, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি হামিদ রানা, সাংগঠনিক সম্পাদক সাকিল ও তাদের সঙ্গে থাকা সানাউল্লাহ ও ইশাহাক।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাদের তদবিরে কর্ণাপত না করলে এক পর্যায়ে সেখানে চিৎকার- চেঁচামেচি করে সাজাপ্রাপ্ত আসামীদের ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যেতে সহযোগিতা করে তারা। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের লোকজন সংখ্যায় কম থাকায় ৫ জন পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

পরে ঘটনাটি জানাজানি হলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জানে আলমের তৎপরতায় গোদাগাড়ী মডেল থানার ওসি খলিলুর রহমান পাটোয়ারীর সহযোগিতায় পালিয়ে যাওয়া ৫ আসামীকে উদ্ধার করে ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করা হলে ৫ মাদকাসক্ত যুবককে ১ বছর করে কারাদণ্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। সাজা প্রাপ্ত আসামীরা হচ্ছেন পৌর এলাকার রামনগরের হুমায়ন কবিরের ছেলে সাদ্দাম(২০), দুরুল হোদার ছেল রিসত(২১), আলম আলীর ছেলে সজিব (২০), মনিরুল ইসলামের ছেলে সাব্বির (২০), বুজরুক রাজারামপুর গ্রামের জসিম উদ্দীনের ছেলে রমজান আলী(২০)।

তবে এই ঘটনায় পালিয়ে যেতে সহযোগিতা প্রদানকারী গোলাম কাউসার মাসুম ও কাউন্সিলর শহিদুল ইসলামকে  আটক করে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

গোদাগাড়ী মডেল থানার ওসি খলিলুর রহমান পাটোয়ারী বলেন, সাজাপ্রাপ্ত পৌর কাউন্সিলরসহ ৭ জনকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

Leave a Reply

চুরি করে নিউজ না করাই ভাল