«» মূলমন্ত্রঃ : সত্যের পথে,জনগনের সেবায়,অপরাধ দমনে,শান্তিময় সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ে" আমরা বাঙালি জাতীয় চেতনায় বিকশিত মহান মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার স্বপক্ষে সত্য এবং ধর্মমতে বস্তুনিষ্ঠ, সৎ ও সাহসী সাংবাদিকতায় সর্বদা নিবেদিত। «»

অপকর্মের কথা আলোচনা করায় স্কুল ছাত্রকে পরিষদে ডেকে মারধর করলেন চেয়ারম্যান টুলু

শুক্রবার, ০৮ নভেম্বর ২০১৯ | ৭:৪২ অপরাহ্ণ | 1086 বার

অপকর্মের কথা আলোচনা করায় স্কুল ছাত্রকে পরিষদে ডেকে মারধর করলেন চেয়ারম্যান টুলু
চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম টুলু। ছবি -অনলাইন থেকে সংগৃহীত

স্টাফ রিপোর্টার : চেয়ারম্যানের অপকর্মের  খবর পত্রিকায় প্রকাশ হওয়ার পর সেই খবর নিয়ে আলোচনা করায় এক স্কুল ছাত্রকে পরিষদে ডেকে বেধড়ক মারপিট করার সংবাদ পাওয়া গিয়েছে।

সূত্রে জানা যায়,কিছুদিন পূর্বে ঢাকা থেকে প্রকাশিত জাতীয় দৈনিক চৌকস পত্রিকায় রাজশাহী গোদাগাড়ী উপজেলার ৪ নং রিশিকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম টুলুকে জড়িয়ে “চেয়ারম্যান টুলুর অপকর্মে অতিষ্ঠ জনগন,জনমনে ক্ষোভ” শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ হয়।ওই সংবাদে রিশিকুল ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম টুলু নারীর সাথে ফূর্তী করতে গিয়ে ধরা পড়ে বিয়ে করার ঘটনা প্রকাশ হয়।এতে অভিযুক্ত ওই চেয়ারম্যান গোটা উপজেলা জুড়ে সমালোচিত হলে সর্বত্রে এই নিয়ে ব্যাপক আলোচনা, সমোলাচনার ঝড় উঠে।আর ওই ঘটনা নিয়ে আলোচনা করায় অত্র ইউপির রিশিকুল স্কুল পাড়া গ্রামের বাবুর ছেলে নবম শ্রেণীতে পড়ুয়া শাকিলকে নিজ ইউনিয়ন পরিষদে ডেকে নিয়ে বেধড়ক মারপিট করেছেন বলে জানিয়েছেন পরিষদের আশেপাশে থাকা কিছু দোকানি এবং সাধারণ জনগন।

 

তবে চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম টুলু কতৃর্ক মারধরের  স্বীকার অত্র ইউপির ৪ নং ওয়ার্ডের সৈয়দপুর শহিদ মঞ্জু উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীতে পড়ুয়া শাকিল এ প্রতিবেদককে মোবাইল ফোনে জানান, আমি একটা অপরাধ করেছিলাম সেকারণে গত ৭ নভেম্বর বৃহস্পতিবার চেয়ারম্যান টুলু পরিষদে ডেকে মারধর করেছে।কি অপরাধের জন্য চেয়ারম্যান মেরেছে এমন প্রশ্নে ওই ছাত্র জানান,বিষয়টি কাউকে জানাতে চেয়ারম্যান নিষেধ করেছে,তানাহলে সমস্যা আছে।যাইহোক আমি আর এসব বলতে পারবোনা বলে ফোন বন্ধ করে দেন।

এপ্রসঙ্গে চেয়ারম্যান কতৃর্ক মারধরের স্বীকার শাকিলের বাবা,বাবু জানান,আমিও শুনেছি ছেলের কাছে থেকে যে চেয়ারম্যান মারধর করেছে।কেন মারধর করেছে এমন প্রশ্নে বাবু জানান,চেয়ারম্যান টুলুর অপকর্মের সংবাদ বের হয়েছে পেপারে এসব আলোচনার জন্যই নাকি আমার বেটাকে মারধর করেছে।

 

এ প্রসঙ্গে  অভিযুক্ত চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম টুলুর সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান,আসলে শাকিল নামের ওই ছেলেটি খুবই খারাপ। মেয়েদের প্রতি আসক্ত।প্রায় ইভটিজিং করে এমন একটি অভিযোগের কারনে পরিষদে ডেকে হালকা চড়,থাপ্পড় মেরে চা মিষ্টি খাইয়ে বিদায় করেছি।ইভটিজিং করলে আইন আছে আইন শৃংখলা বাহিনী অভিযোগের সত্যতা যাচাই করে যথাযথ ব্যাবস্থা গ্রহণ করবে কিন্তু তিনি কেন পরিষদে ডেকে বেআইনিভাবে একজন স্কুল ছাত্রকে মারধর করবে এমন প্রশ্নে চেয়ারম্যান টুলু এ প্রতিবেদককে তার পরিষদে চা খাওয়ার দাওয়াত দিয়ে তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করে ফোন বন্ধ করে দেন।

 

এ প্রসঙ্গে চেয়ারম্যানের হাতে মারপিটের স্বীকার শাকিলের ৩ নং ওয়ার্ডের ইউপি মেম্বার জালালের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনী জানান,ছেলেটা একটু বেয়াদবী করেছিলো তাই চেয়ারম্যান ইউনিয়ন পরিষদে ডেকে এই দু’তিন থাপ্পড় মেরেছে।চেয়ারম্যানের সাথে শাকিল কি ধরনের বেয়াদবী করেছেন এমন প্রশ্নে মেম্বার জালাল জানান,চেয়ারম্যানের ব্যাপারে একটু দূর্নাম করেছিলো সে জন্য দু’তিন থাপ্পড় দিয়ে শাসন করেছেন।উক্ত শাকিল কি ইভটিজিং করেছে এমন অভিযোগ পেয়েছিলো চেয়ারম্যান? এমন প্রশ্নে মেম্বার জানান,না না,এসব না,ছেলেটা এমনিতেই ভালো তবে চেয়ারম্যানের বদনাম করায় চেয়ারম্যান রেগে মারের মাধ্যমে শাসন করেছেন।চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে কেউ বদনাম করলেই কি চেয়ারম্যান ইউনিয়ন পরিষদে ডেকে এমন করে মারার নিয়ম আছে প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান,যেহেতু উনি চেয়ারম্যান সেহেতু এরকম শাসন উনি করতেই পারেন।এটা কোন ব্যাপার না বলে ফোন বন্ধ করে দেয়।

 

এ প্রসঙ্গে গোদাগাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান,আমি এখন একটু ব্যাস্ত আছি।পরে ফোন দিয়েন।

 

এলাকাবাসী জানান,এই ঘটনাই টুলু চেয়ারম্যানের নতুন ঘটনা নয়।আরো অনেক অনিয়ম,অবিচার আছে আর কিছুই বলবোনা তাকে।আর কিছুদিন আছে তার মেয়াদপূর্নের।আগামী ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে ভোটের মাধ্যমেই তার সকল কৃতকর্মের জবাব দিবো।একজন চেয়ারম্যান হয়ে এই সামান্য ঘটনাকে কেন্দ্র করে যিনি একজন ছাত্রকে তার পরিষদে ডেকে বেআইনিভাবে মারধর করতে পারে সে জনগনকে বিপদে ফেলে তার স্বার্থ হাসিল করতে যেকোন কাজ করতে পারে।এই ঘটনার পরে পুরো রিশিকুল ইউনিয়নে বিশেষ করে চায়ের স্টলে চলছে কানঘুষা,আলোচনা,সমালোচনা আর আগামী ইউপি নির্বাচনে কাকে ভোট দিবেন সেই সিদ্ধান্ত।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

অপকর্মের কথা আলোচনা করায় স্কুল ছাত্রকে পরিষদে ডেকে মারধর করলেন চেয়ারম্যান টুলু

Development by: bdhostweb.com

চুরি করে নিউজ না করাই ভাল