«» মূলমন্ত্রঃ : সত্যের পথে,জনগনের সেবায়,অপরাধ দমনে,শান্তিময় সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ে" আমরা বাঙালি জাতীয় চেতনায় বিকশিত মহান মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার স্বপক্ষে সত্য এবং ধর্মমতে বস্তুনিষ্ঠ, সৎ ও সাহসী সাংবাদিকতায় সর্বদা নিবেদিত। «»

গোদাগাড়ীর সৈয়দপুরে ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত

শনিবার, ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৯:৪৬ অপরাহ্ণ | 191 বার

গোদাগাড়ীর সৈয়দপুরে ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত
বিজয়ীদের মাঝে ট্রফি তুলে দিচ্ছেন সাবেক যুবলীগ নেতা সফিকুল ইসলাম সরকার

 

ওয়াসিম আল-রাজি, নিজস্ব প্রতিবেদক :



রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার রিশিকুল ইউপির সৈয়দপুর শহিদ মঞ্জু উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গণে এনায়েতুল্লাপুর সততা সংঘের আয়োজনে পা- গোল ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

৭/৯/২০১৯ ইং তারিখ শনিবার সৈয়দপুর হাইস্কুল মাঠে অনুষ্ঠিত ফাইনাল খেলায় অংশ নেয় রুহুল একাদশ এবং রাজশাহীর মৃদুল একাদশ ফুটবল দল।খোলায় রুহুল একাদশ ২-০ গোলে জয়ী হয়।

 

খেলা শেষে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন গোদাগাড়ী উপজেলার সাবেক যুবলীগ সভাপতি এবং সমাজ সেবক সফিকুল ইসলাম সরকার।প্রধান অতিথির বক্তব্যে যুবলীগ নেতা সফিকুল ইসলাম সরকার বলেন,মাদকের ভয়াল ছোবল থেকে রক্ষায় যুবসমাজের খেলাধূলার কোন বিকল্প নেই।তিনি বলেন,সৈয়দপুর হাইস্কুল মাঠটি মোট ৫৪ শতাংশ জমির উপর গঠিত।কিন্তু জরিপে দেখা গিয়েছে ৫৪ শতাংশের মধ্যে প্রায় ২০ শতাংশ জমি বিভিন্ন বাক্তিসহ মাঠের উত্তর পাশের পুকুর গর্ভে বিলীন হয়ে গিয়েছে। অল্প কিছু দিনের মধ্যে এলাকার যুবসমাজের বিভিন্ন প্রকার খেলাধুলা চর্চার জন্য,যুবসমাজের শারীরিক চর্চার জন্য উল্লেখিত মাঠের জমি উদ্ধারেরও প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।সফিকুল ইসলাম সরকার বলেন,ছাত্রজীবন থেকেই সমাজসেবায় নিজেকে উতসর্গ করেছি,গোদাগাড়ী উপজেলা তথা এলাকার মানুষের জন্য সর্বদা ভালো কিছু করার চেষ্টা করেছি যা ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।তিনি বলেন এলাকার যুবসমাজের জন্য এই স্কুল মাঠকে মিনি স্টেডিয়ামের মডেল হিসেবে গড়ে তোলা হবে।তিনি সৈয়দপুর গ্রামকে পরিকল্পিত,উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে গড়ে তুলতে সবার সাহায্য কামনা করেন। এসময় তিনি স্কুল মাঠের জমি দাতা সহ ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে সকল শহিদদের গভীরভাবে স্মরন করেন এবং এলাকার মানুষের জন্য যেকোনো সাহায্য সহযোগিতা করারও আশাবাদ ব্যাক্ত করেন।

 

২ দিনের পা-গোল ফুটবল টূর্নামেন্টের ১৬ দলের এই খেলায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,রিশিকুল ইউপির ৪ নং ওয়ার্ড মেম্বার কামাল হোসেন,রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগের সহঃ সভাপতি সুইট,সৈয়দপুর শহিদ মঞ্জু উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক আলহাজ্ব খোশ মোহাম্মদ,আলহাজ্ব আঃ সাত্তার সহ অনেকে।

 

প্রধান অতিথি,বিশেষ অতিথির বক্তব্য শেষে চ্যাম্পিয়ন -রুহুল একাদশের মাঝে চ্যাম্পিয়ন ট্রফি এবং ১১০০০/= টাকা,রানারআপ -মৃদুল একাদশ রাজশাহীর মাঝে রানারআপ ট্রফি এবং ৮০০০/= টাকা প্রদান করা হয়।খেলায় সেরা খেলোয়াড় বিবেচিত  হন তুষার।

উক্ত ১৬ দলের দুইদিনের পা-গোল ফুটবল টূর্নামেন্টের খেলাটি পরিচালনা করেন নওশাদ আলী।

 

খেলার উদ্দোক্তা এবং সকল কার্যক্রম দেখভাল  করেন নাইম কবীর।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

সমুদ্র-দর্শন অথবা প্রেম- আমিনুল ইসলাম

Development by: bdhostweb.com

চুরি করে নিউজ না করাই ভাল