«» মূলমন্ত্রঃ : সত্যের পথে,জনগনের সেবায়,অপরাধ দমনে,শান্তিময় সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ে" আমরা বাঙালি জাতীয় চেতনায় বিকশিত মহান মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার স্বপক্ষে সত্য এবং ধর্মমতে বস্তুনিষ্ঠ, সৎ ও সাহসী সাংবাদিকতায় সর্বদা নিবেদিত। «»

রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে ছেলেধরা সন্দেহে প্রতিবন্ধী নারীকে গণপিটুনি

শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯ | ২:৩০ অপরাহ্ণ | 64 বার

রাজশাহীর  গোদাগাড়ীতে ছেলেধরা সন্দেহে প্রতিবন্ধী নারীকে গণপিটুনি
গোদাগাড়ীতে ছেলেধরা সন্দেহে প্রতিবন্ধী নারীকে গণপিটুনি

গোদাগাড়ী প্রতিনিধি:



পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা লাগবে এমন গুজবে যখন সারাদেশ আলোচিত। আর এই আলোচনা সমালোচনায় দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে মানসিক প্রতিবন্ধী, বৃদ্ধ, পাগলসহ নানানজন ছেলেধরা সন্দেহে জনগণের হাতে মারধরের শিকার হচ্ছেন। ঠিক সেই মুহুর্তে রাজশাহীর গোদাগাড়ী পৌর এলাকায় শিবা বেওয়া (৫৫) নামের এক নারী মানসিক প্রতিবন্ধী স্থানীয় জনগণের হাতে মারধরের শিকার হয়েছেন। পরে পুলিশ খবর পেয়ে ওই নারীকে উদ্ধার করে গোদাগাড়ী মডেল থানায় নিয়ে আসে।

 

গোদাগাড়ী মডেল থানার ওসি মোঃ জাহাঙ্গীর আলম জানান, পবা উপজেলার দামকুড়া গ্রামের শিবা বেওয়া (৫৫) নামের এক মানসিক রোগীকে গোদাগাড়ী পৌর এলাকার হাটপাড়াতে ছেলেধরা সন্দেহে মারধর শুরু করে । তার কাছে কিছু ব্যাগ ও খাবার থাকায় সন্দেহ বাড়লে জনগণ ক্ষিপ্ত হয়। পরে পুলিশ খবর পেলে থানায় উদ্ধার করে নিয়ে আসি।

 

ওসি আরো জানান, তার ছেলে রাজশাহী কাশিয়াডাঙ্গা এলাকার সোনালী ব্যাংকে চাকরি করে। তারা পরিবারের কাছে খবর দিলে তার ছেলে ও স্থানীয় ইউপি সদস্য এসে নিয়ে গেছে। ওসি জাহাঙ্গীর আলম তার ছেলের বরাত দিয়ে জানান, শিবা বেওয়া মানসিক ভাবে অনেক দিন হতেই অসুস্থ। কখন বাড়ি হতে বের হয়ে যায় তার ঠিক থাকে না। এই নিয়ে তার ছেলেও চিন্তায় থাকে। ছেলেধরা গুজবের কবলে পড়ে তার মা মারধরের শিকারে বড়ই চিন্তিত।

 

গোদাগাড়ী মডেল থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম এলাকার লোকজনকে ছেলেধরা গুজবে কান না দেবার অনুরোধ করেছেন। পদ্মাসেতুতে কোন মানুষের মাথা লাগবে না এটা একটি চক্র গুজব ছড়িয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করছে তাই সকলকে সজাগ থাকার আহবান জানিয়েছেন।

 

এদিকে ছেলে ধরা গুজবে গোদাগাড়ী উপজেলা বিভিন্ন স্কুলগুলোকে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি কমে গেছে।

 

 

 

ও/আ

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

জাকির নায়েকের বসবাসের অনুমতি বাতিল করা হতে পারে: মাহাথির

Development by: bdhostweb.com

চুরি করে নিউজ না করাই ভাল