«» মূলমন্ত্রঃ : সত্যের পথে,জনগনের সেবায়,অপরাধ দমনে,শান্তিময় সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ে" আমরা বাঙালি জাতীয় চেতনায় বিকশিত মহান মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার স্বপক্ষে সত্য এবং ধর্মমতে বস্তুনিষ্ঠ, সৎ ও সাহসী সাংবাদিকতায় সর্বদা নিবেদিত। «»

কুলাউড়ায় ট্রেন দুর্ঘটনা: স্টেশন মাস্টারকে ঢাকায় তলব

মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০১৯ | ৬:৫৮ অপরাহ্ণ | 31 বার

কুলাউড়ায় ট্রেন দুর্ঘটনা: স্টেশন মাস্টারকে ঢাকায় তলব
বরমচালে ভয়াবহ দুর্ঘটনার ব্রিজ মেরামতের পাশাপাশি ট্রেন চলছে।ছবি-সংগৃহীত

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার বরমচালে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনায় হতাহতের ঘটনায় বরমচাল স্টেশনের কর্তব্যরত স্টেশন মাস্টার রোমান আহমদকে ঢাকায় তলব করা হয়েছে।

এ ছাড়া রেলমন্ত্রী মো. নুরুল ইসলাম সুজন বুধবার কুলাউড়া উপজেলার বরমচালে সংঘটিত ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

এদিকে দুর্ঘটনাস্থল মেরামতের পর ট্রেন চলাচল করলেও তাতে সন্তোষ্ট নন বরমচালবাসী। তারা আরও বড় ধরণের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছেন।

সূত্র জানায়, বরমচালে বড়ছড়ায় দুর্ঘটনার ব্যাপারে জানতে কর্তব্যরত স্টেশন মাস্টার রোমান আহমদকে ঢাকায় তলব করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে রোমান আহমদের ব্যক্তিগত মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি ঢাকায় অবস্থানের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তবে ঝামেলায় আছেন পরে কথা বলবেন বলে ফোন কেটে দেন তিনি।

মঙ্গলবার দুপুর ২টায় দুর্ঘটনাস্থলে গেলে ঢাকা থেকে সিলেটগামী সুরমা মেইল ট্রেন দুর্ঘটনাস্থল ধীরে ধীরে অতিক্রম করতে দেখা যায়। ক্ষতিগ্রস্ত রেললাইনের উভয়পাশে ৪টি বগি পড়ে আছে। বড়ছড়া নদীতে সেই বগিটিও পড়ে রয়েছে।

উৎসুক মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত ট্রেন দেখতে এখনও ভিড় করছেন। ক্ষতিগ্রস্ত রেললাইন ও বড়ছড়া রেলব্রিজে কাজ করতে দেখা যায় রেল শ্রমিকদের।

সাংবাদিকদের পেয়েই ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানান বরমচালবাসী। জোরপূর্বক সাংবাদিকদের টেনে নিয়ে স্টেশন এলাকায় ট্রেন লাইনে সংযোগস্থল দেখান। দুটি রেলের সংযোগস্থলে স্লিপারের সঙ্গে ৮টি ক্লিপ থাকার কথা থাকলেও কোথাও একটি আবার কোনো কোনো সংযোগস্থলে ক্লিপ নেই।

তাছাড়া রেলের সঙ্গে স্লিপারের ক্লিপ নেই। রেলের স্লিপারের মধ্যে পাথর নেই। ঘাসে আচ্ছাদিত পাথর। লাইনের এই অবস্থায় দুর্ঘটনা হবে নাতো কী হবে? এমন প্রশ্ন বরমচালবাসীর।

স্থানীয় মাসুক মিয়া, জাকারিয়া আলম, সুলতান আহমদ চৌধুরী, সিপন আহমদ জানান, স্টেশনে ৩টি লাইন রয়েছে। ৩ নম্বর লাইনটি বন্ধ। দুর্ঘটনার পর থেকে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে ১ নম্বর লাইন। শুধুমাত্র ২ নম্বর লাইন দিয়ে ট্রেন চলাচল করছে। এমতাবস্থায় বরমচাল স্টেশনে কোনো ট্রেন ক্রসিং করা মোটেও সম্ভব নয়। ফলে এই ট্রেনলাইনে আরও বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছেন তারা।

রেলমন্ত্রীর পরিদর্শনের খবর জেনে তারা পুরো বিষয়টি মন্ত্রীর কাছে তুলে ধরবেন বলে জানান।

এদিকে বরমচাল স্টেশন মাস্টার সফিকুল ইসলাম জানান, দুর্ঘটনাকবলিত উপবন ট্রেনটিকে ২ নম্বর লাইনেই লাইন ক্লিয়ারেন্স দেয়া ছিল। কম্পিউটারেও কোনো সমস্যা উল্লেখ করে নির্দেশনা দেয়া ছিল না।

কুলাউড়া স্টেশন মাস্টার আফছার উদ্দিন ও রেলওয়ে জিআরপি থানার ওসি আবদুল মালেক বলেন, রেলমন্ত্রী সিলেট যাবেন জানি। তবে দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করবেন কিনা জানি না।

মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক মো. তোফায়েল ইসলাম বলেন, রেলমন্ত্রী মো. নুরুল ইসলাম সুজন বুধবার আন্তঃনগর উপবন এক্সপ্রেস ট্রেনযোগে সিলেট আসবেন। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ট্রেন দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করবেন তিনি।

 

 

ও/আ

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

গভীর রাতে রাজশাহীর ৪৩ হজযাত্রীকে নিয়ে গেল বিমান

Development by: bdhostweb.com

চুরি করে নিউজ না করাই ভাল