«» মূলমন্ত্রঃ : সত্যের পথে,জনগনের সেবায়,অপরাধ দমনে,শান্তিময় সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ে" আমরা বাঙালি জাতীয় চেতনায় বিকশিত মহান মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার স্বপক্ষে সত্য এবং ধর্মমতে বস্তুনিষ্ঠ, সৎ ও সাহসী সাংবাদিকতায় সর্বদা নিবেদিত। «»

ক্রিকেটারদের দায়িত্ব বুঝিয়ে দিয়েছি: রোডস

শুক্রবার, ১৪ জুন ২০১৯ | ১১:৫৯ পূর্বাহ্ণ | 32 বার

ক্রিকেটারদের দায়িত্ব বুঝিয়ে দিয়েছি: রোডস

বাংলাদেশ কোচ স্টিভ রোডস মনে করেন, ক্রিকেটবিশ্বে বড় দলগুলোর বিপক্ষে লড়াই করার সামর্থ্য আছে টাইগারদের। ক্রিকেটবিষয়ক জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফোকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এ মত ব্যক্ত করেন।

রোডস বলেন, আপনি যদি এ বিশ্বকাপে সব দলের দিকে তাকান, দেখবেন কয়েকটি বড় দলের বিপক্ষে লড়াই করেছি আমরা। তবে এটি ঠিক, সেই দলগুলোর গভীরতা ও মানের দিক থেকে আমরা এখনও অনেক পিছিয়ে। আমাদের কয়েকজন ক্রিকেটার আছে, যারা সর্বাত্মক চেষ্টা করছে নিজেদের উন্নতির জন্য। আমাদের সেই সক্ষমতাও রয়েছে। সাকিব দুর্দান্ত পারফরম করছে। আমরা ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্সের সেই গভীরতায় পৌঁছানোর চেষ্টা করে যাচ্ছি। তবে আপনি বলতে পারেন, তাদের অভিজ্ঞতা অনেক কম।

২০১৮ সালের জুনে বাংলাদেশে কোচের দায়িত্ব নেন ইংল্যান্ডের সাবেক উইকেটরক্ষক রোডস। তার দায়িত্ব নিশ্চিতের আগে পল ফারব্রেস, অ্যান্ডি ফ্লাওয়ার, টম মুডিসহ আরও বেশ কয়েকজন বড়মাপের কোচ টাইগারদের দায়িত্ব নিতে অস্বীকার করেন। শেষমেষ বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে রোডসকে জাতীয় দলের দায়িত্ব দেয় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

রোডসের অধীনে বাংলাদেশের ক্রিকেটের উন্নতিও বেশ চোখে পড়ার মতো। এখন পর্যন্ত তার অধীনে ২৫টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলে ১৫টিতে জয় পেয়েছেন টাইগাররা। এ ছাড়া প্রথমবারের মতো কোনো বহুজাতিক টুর্নামেন্টের শিরোপাও জেতে তারা। বিশ্বকাপের আগে আয়ারল্যান্ডের মাটিতে ত্রিদেশীয় সিরিজের শিরোপা জয় করে মাশরাফিরা। এ নিয়েই বিশ্বকাপের মাটিতে পা রাখে তারা।

বাংলাদেশের প্রধান খেলোয়াড় মাশরাফি বিন মুর্তজা, সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এ পঞ্চপাণ্ডবের ধারাবাহিকতাই দলকে সাফল্যের মধ্যে রেখেছে। তবে এ পাঁচজনের বাইরেও অন্যান্য খেলোয়াড়কে ম্যাচ জয়ের জন্য তৈরি করছেন রোডস। এর মধ্যে আছেন সৌম্য সরকার, লিটন দাস, সাব্বির রহমান, মোস্তাফিজুর রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের মতো খেলোয়াড়রা।

তিনি বলেন, প্রধান কোচ হিসেবে প্রশিক্ষণের সময় পরিকল্পনা অনুযায়ী মাঠে ক্রিকেটারদের মাঝে তাদের দায়িত্ব বুঝিয়ে দিয়েছি। কিভাবে তারা সিদ্ধান্ত নেবে এবং নিজেরাই শিক্ষা নিয়ে নিজেদের তৈরি করবে। আর এজন্যই তরুণ ক্রিকেটাররা এখন মাঠে ভালো পারফরম করছে। তাই সবাই আমাদের দলকে সমীহ করছে।

পঞ্চপাণ্ডবের বাইরে যারা আছেন, তাদের নিয়ে রোডস বলেন, সৌম্য ভালো ছন্দে রয়েছে। লিটন ভালো ফর্মে আছে। যদিও সে এখনও খেলার সুযোগ পায়নি। সাব্বির রহমান নিউজিল্যান্ডে সেঞ্চুরি করেছে। মিরাজ শেষ দুই-তিন বছর ভালো বল করছে। মোস্তাফিজ-সাইফউদ্দিনও ভালো পারফরম করছে। তাই বলা যায়, আমাদের দলে পারফরমারদের গভীরতা ধীরে ধীরে বাড়ছে।

চলমান বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে দারুণ শুরু করে বাংলাদেশ। এর পর নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে লড়াই করেন টাইগাররা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ২ উইকেটে ম্যাচ হারে তারা। তবে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে লড়াইয়ের ছিটেফোঁটাও দেখাতে পারেনি বাংলাদেশ। এর পর বৃষ্টির কারণে শ্রীলংকার সঙ্গে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেন রোডসের শিষ্যরা। এতে তিনি নিজেও হতাশ। কিন্তু হতাশার মাঝে বিশ্বকাপের বাকি ম্যাচগুলোতে সাফল্য পাওয়ার ব্যাপারে বেশ আশাবাদী বর্ষীয়ান কোচ।

 

ও/আ

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ-

Development by: bdhostweb.com

চুরি করে নিউজ না করাই ভাল