«» মূলমন্ত্রঃ : সত্যের পথে,জনগনের সেবায়,অপরাধ দমনে,শান্তিময় সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ে" আমরা বাঙালি জাতীয় চেতনায় বিকশিত মহান মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার স্বপক্ষে সত্য এবং ধর্মমতে বস্তুনিষ্ঠ, সৎ ও সাহসী সাংবাদিকতায় সর্বদা নিবেদিত। «»

অপরাধী অশিক্ষিতরা সাংবাদিক পেশায় বিজড়িত বেশি।

শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৮:৪৪ অপরাহ্ণ | 222 বার

এম এবি সুজন

এমএবি সুজন:রাজনীতিক ও সাংবাদিকরা মামলায় জর্জরিত হলে তাতে

তাদের প্রচার প্রসার বাড়ে বহুগুণে। মামলায় কোন

প্রকার মানহানি হয়না তাদের। অন্যায় ও অপরাধ থেকে

বাঁচতে বা পার পেতে হলে নিতে হয় আশ্রয়

প্রশ্রয়। প্রথমে অপরাধী পরে সাংবাদিক

পরিশেষে রাজনৈতিক আশ্রয় প্রশ্রয়ে বড় হতে

থাকে কতিপয় ভুয়া ভূইফোঁড় নেতা বা সাংবাদিক মন্ডলী

কুচাল কুন্ডলি।

রাজনীতি মিশ্রিত ও আশ্রিত সাংবাদিকরা

মেধাবিক্রিত ‌বিকৃতরুচির পরীক্ষিত স্বার্থপর, দালাল ও

চাটুকার কথিত প্রচলন প্রথিত তথা আত্মস্বীকৃত

সাংঘাতিক ‌শ্রেণির সাংবাদিকরা সত্যের কাছে পরাজিত তারা

মিথ্যাদলিত অপরাধী; ঈমানচোর বেঈমান ও

মোনাফেক বটে। অবশ্যই অপরাধী ও অশিক্ষিতরা

সাংবাদিক পেশায় জড়িত হয়েছে এবঙ হচ্ছে বেশি

বেশি।

সদ্য প্রসূত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ উচিত

সময়োপযোগি যুক্তিযুক্ত তাতে কোন সন্দেহ

নেই তবে প্রথমেই দেখতে হবে ইহার

ব্যবহারিক প্রয়োগ বিধি ও ব্যবহার ধারণ লালন ও পালন

প্রণালি। ইহার সত্যিসঠিক ব্যবহারে দেশের প্রকৃত

সাংবাদিকদের মান মর্যাদা ও কর্মপরিধি বাড়বে। এই

যুগান্তকারী আইনের অপব্যবহার যেনো পেশাদার

সাংবাদিকদের সত্যকাজে কোন প্রকার বাঁধা হয়ে না

দাঁড়ায় সে আশা কামনা বাসনা ও আস্থা বিশ্বাস সকল

সাংবাদিকদের দাবী ও অধিকার যা আইনের প্রতিপালন

দেখে বুঝতে হবে।

এদিকে সমাজের বিশিষ্টজনেরা মনে করেন,

প্রতিটি থানা ও পুলিশ ফাঁড়ি পর্যায়ে তালিকা থাকা জরুরি।

প্রকৃত সাংবাদিকদের তালিকা অনলাইনেও প্রচারবহুল রাখা

জনগুরুত্বপূর্ণ বিষয় সময়ের প্রয়োজন।

বিস্তারিত আসছে।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

Development by: bdhostweb.com

চুরি করে নিউজ না করাই ভাল