21/01/2022

মোংলায় বৃদ্ধের জায়গা দখল করে প্রতিবেশীর পুকুর খনন

1 min read

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধিঃ


মোংলায় ৪০ বছর ধরে ভোগ-দখলে থাকা বৃদ্ধের জায়গা জবরদখল করে সেখানে পুকুর খননের অভিযোগ পাওয়া গেছে প্রতিবেশী প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে।

জায়গা দখল করে পুকুর খননে বাধা দেয়া প্রতিপক্ষের হুমকি-ধমকি ও ভয়ভীতি ঘর ছেড়ে এখন অন্যত্র পালিয়ে বেড়াচ্ছেন ওই বৃদ্ধ। নিজ জমি ফিরে পেতে ও জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় লিখিত অভিযোগও দিয়েছেন তিনি।

উপজেলা প্রশাসন ও থানায় দায়েরকৃত অভিযোগে জানা যায়, উপজেলার চিলা ইউনিয়নের বৈদ্যমারী এলাকার জে,এল-১৩ নম্বর বৈদ্যমারী মৌজায় ১/১ নম্বর খতিয়ানভুক্ত ১ দশমিক ৭ একর বাস্তবাড়ীর মধ্যে বিআরএস ৭০ নম্বর দাগের ২৫ শতক জমিতে দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে বসবাস করে আসছেন আনোয়ার হোসেন (৭০)।

সর্বশেষ জরিপেও আনোয়ার হোসেনের নামেই এই জমির দখল উল্লেখ রয়েছে। কিন্তু শনিবার দুপুরে প্রতিবেশী প্রতিপক্ষ নুরুল হক ও নুরুল হকের ছেলে নাছির লোকজন নিয়ে আনোয়ার হোসেনের ওই জমি নিজের দাবি করে সেখানে পুকুর খনন শুরু করেন।

এতে বাধা দিলে প্রতিপক্ষ নুরুল হক ও নাছির বৃদ্ধ আনোয়ার হোসেনকে হুমকি-ধমকি ও ভয়ভীতি দেখিয়ে সেখান থেকে জোরপূর্বক তাড়িয়ে দেয়। এরপর অসহায় বৃদ্ধ এ ঘটনায় শনিবার বিকেলে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

বৃদ্ধ আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘আমি ৪০ বছর ধরে ২৫ শতক জমিতে ঘরবাড়ি করে বসবাস করে আসছি। হঠাৎ করে নুরুল হক ও তার ছেলে নাছির আমার বসতঘরটুকু বাদে বাকি জায়গার ওপর পুকুর কাটতে শুরু করে। আমি বাধা দিলে তারা উল্টো আমাকে প্রাণে মারার হুমকি দিয়ে বাড়ি থেকেই বের করে দিয়েছে। এখনও (রবিবার) তারা সেখানে বিশাল পুকুর খনন করছে। আর পুকুরের তোলা মাটি আশপাশে বিক্রি করছে।

আমি কি করবো, থানায় অভিযোগ দিয়ে এসেছি, দেখি কি হয়। ’

এ বিষয়ে নাছির বলেন, ‘এখানে যদি আনোয়ার হোসেনের কোনো জায়গা থাকে তাহলে সে খুজে নিয়ে যাক, আমাদের জায়গায় আমরা পুকুর কাটছি। ’

 

মোংলা থানার এসআই অমিত বিশ্বাস বলেন, অভিযোগের বিষয়টিতে খোঁজখবর নিয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

Leave a Reply

চুরি করে নিউজ না করাই ভাল